আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।
মালদ্বীপে জরুরি অবস্থা জারি করেছে সরকার। রাজনৈতিক সংকট ঘনীভূত হওয়ায় গতকাল সোমবার দেশটির প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ ইয়ামিন ১৫ দিনের জন্য জরুরি অবস্থার ঘোষণা দেন। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

জরুরি অবস্থা জারির কয়েক ঘণ্টার মধ্যে মালদ্বীপের প্রধান বিচারপতি আব্দুল্লাহ সাঈদকে গ্রেফতার করেছে দেশটির আইনশঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

প্রধান বিচারপতি আব্দুল্লাহ সাঈদের সঙ্গে আলী হামিদ নামে অপর একজন বিচারককেও গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া সোমবার রাত থেকে সুপ্রিম কোর্ট এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

মালদ্বীপ পুলিশ টুইট বার্তায় বলেছে, তারা ‘চলমান তদন্তের জন্য’ সাঈদ ও সুপ্রিম কোর্টের বিচারক আলী হামিদকে গ্রেফতার করেছে। তবে এ দু’জন বিচারকের বিরুদ্ধে অভিযোগ সম্পর্কে কোনো বিস্তারিত বিবরণ দেয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, এর আগে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে প্রেসিডেন্টের সহযোগী ও আইনবিষয়ক মন্ত্রী আজিমা সাকুর জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, সরকার বিশ্বাস করে না যে, রাজবন্দিদের মুক্তি দিতে সুপ্রিম কোর্টের আদেশ বাস্তবায়ন করতে হবে।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। সূত্র : বিবিসি।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/02/77.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/02/77-300x300.jpgহাসন রাজাআন্তর্জাতিক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক । মালদ্বীপে জরুরি অবস্থা জারি করেছে সরকার। রাজনৈতিক সংকট ঘনীভূত হওয়ায় গতকাল সোমবার দেশটির প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ ইয়ামিন ১৫ দিনের জন্য জরুরি অবস্থার ঘোষণা দেন। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। জরুরি অবস্থা জারির কয়েক ঘণ্টার মধ্যে মালদ্বীপের প্রধান বিচারপতি আব্দুল্লাহ সাঈদকে গ্রেফতার করেছে দেশটির আইনশঙ্খলা...