image_261268.nojrul
বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রের নামে জনগণের সঙ্গে রসিকতা করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। আজ বুধবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।
তিনি বলেন, বিএনপির কর্মসূচি পালনে বাধা প্রদান করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। তিনি আরো বলেন, সরকার বিএনপির গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও রাজপথের কর্মসূচি পালনে বাধা সৃষ্টি করছে। এভাবে চলতে থাকলে দেশে কোনো গণতান্ত্রিক রাজনীতি থাকবে না।
মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশ করে বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। আর এই আন্দোলন হবে জনগণের আন্দোলন।
এ ছাড়াও সরকারকে উদ্দেশ করে নজরুল ইসলাম বলেন, গণতন্ত্রকে তার নিজস্ব পথে চলতে দিন। জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিয়ে দেশে একটি গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য সহযোগিতা করুন। গ্রেপ্তারকৃত বিএনপির নেতা-কর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে তাদের মুক্তির ব্যবস্থা করুন। অন্যথায় দেশে গণতান্ত্রিক রাজনীতির ধারা ব্যাহত হবে। সরকার নানা কৌশল অবলম্বন করে বিএনপির স্বাভাবিক ও গণতান্ত্রিক রাজনীতির পথে বাধা সৃষ্টি করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
২৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ইসতিয়াক আজিজ উলফাতের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীরবিক্রম, নির্বাহী কমিটির সদস্য শাহ মো. আবু জাফর বক্তব্য রাখেন।

নৃপেন পোদ্দারজাতীয়
বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রের নামে জনগণের সঙ্গে রসিকতা করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। আজ বুধবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, বিএনপির কর্মসূচি পালনে বাধা প্রদান করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার গণতন্ত্রকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। তিনি আরো...