নিজস্ব প্রতিবেদক ।
জাতীয়করণের দাবিতে মঙ্গলবার সকাল এগারোটা থেকে আমরণ অনশন শুরু করেছেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী (প্রথম থেকে ৫ম শ্রেণি) মাদ্রাসার শিক্ষকরা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে টানা ৮ দিন অবস্থান ধর্মঘটের পর মঙ্গলবার থেকে একই স্থানে এ অনশন কর্মসূচি শুরু তারা।

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতি সভাপতি কাজী রুহুল আমিন চৌধুরী বলেন, অবস্থান কর্মসূচির এক সপ্তাহ পরও সরকার থেকে কোনো সাড়া না পাওয়ায় মঙ্গলবার থেকে আমরা আমরণ অনশনে যেতে বাধ্য হয়েছি।

অনশনরত শিক্ষকরা বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ২২ থেকে ৩০ হাজার টাকা বেতন পান। কিন্তু আমরা কোনো বেতন পাই না। অথচ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো আমরাও পাঠদান করছি।

শিক্ষকরা জনিয়েছেন, সারাদেশে মাদ্রাসা বোর্ড থেকে নিবন্ধিত স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা ১৮ হাজার ১৯৪টি হলেও চালু আছে ১০ হাজারের মতো। এসব মাদ্রাসায় শিক্ষক আছেন প্রায় ৫০ হাজার। এর মধ্যে ১ হাজার ৫১৯টি মাদ্রাসার ৬ হাজার ৬৭৬ জন শিক্ষক সরকার থেকে কিছু ভাতা পান। এর মধ্যে প্রধান শিক্ষকেরা মাসে আড়াই হাজার টাকা এবং সহকারী শিক্ষকেরা পান ২ হাজার ৩০০ টাকা। অন্যরা সরকার থেকে কোনো বেতন-ভাতা পান না।

শিক্ষকরা বলে, প্রায় দুই যুগ ধরে ইবতেদায়ি মাদ্রাসা চলছে। ১৯৯৪ সালে এক পরিপত্রের মাধ্যমে রেজিস্টার্ড বেসরকারি প্রাইমারি ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকদের বেতন ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। পরিপত্রে ইবতেদায়ি শিক্ষকদের বেতন ভাতার কথা বলা হলেও তা দেওয়া হচ্ছে না। এমতাবস্থায় ইবতেদায়ি শিক্ষকেরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। ন্যায্য দাবি আদায়ে আমরা শিক্ষা মন্ত্রী ও শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর হস্তেক্ষেপ কামনা করছি।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/01/223.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/01/223-300x300.jpgতালুকদার বাবুলজাতীয়
নিজস্ব প্রতিবেদক । জাতীয়করণের দাবিতে মঙ্গলবার সকাল এগারোটা থেকে আমরণ অনশন শুরু করেছেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী (প্রথম থেকে ৫ম শ্রেণি) মাদ্রাসার শিক্ষকরা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে টানা ৮ দিন অবস্থান ধর্মঘটের পর মঙ্গলবার থেকে একই স্থানে এ অনশন কর্মসূচি শুরু তারা। স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা...