google5-150x84
অনেকেরই স্বপ্ন ইস যদি গুগলে কাজ করার সুযোগ পেতাম! আর থাকবেই বা না কেন, কাজের সবচেয়ে ভালো পরিবেশ আর বেতন-ভাতা মিলিয়ে বিশ্বের সেরা কোম্পানি গুগল। কর্মীদের কাজের সেরা পরিবেশ দেওয়ার জন্য এবার নিয়ে শীর্ষ কোম্পানি হিসেবে হ্যাট্টিক করল গুগল।

মার্কিন গবেষণা ও পরামর্শক প্রতিষ্ঠান গ্রেট প্লেস টু ওয়ার্ক ইনস্টিটিউটের করা ‘বিশ্বের সেরা মাল্টিন্যাশনাল কর্মপরিবেশ তালিকা’য় এ বছর শীর্ষে গুগল। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এসএএস ইনস্টিটিউট ও তৃতীয় অবস্থানে আছে ডব্লিউ এল গোর কোম্পানি।

গ্রেট প্লেস টু ওয়ার্কের করা তালিকায় ২৫টি প্রতিষ্ঠান ঠাঁই পেয়েছে। এই তালিকায় চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছে স্টোরেজ সেবাদাতা প্রতিষ্ঠাতা নেট অ্যাপ ও মোবাইল যোগাযোগের প্রতিষ্ঠান টেলিফোনিকা। এরপরের দুটি অবস্থান ইএমসি করপোরেশন ও মাইক্রোসফটের।
এরপরের স্থানগুলোতে রয়েছে ম্যারিয়ট, বেলক্রপ, স্কটিয়াব্যাংক, অটোডেস্ক, সিসকো, অ্যাটেনটো,ডিয়াগো, অ্যাকোর, হ্যায়াট, মার্স, ক্যাডেনস, হিল্টি, ইওয়াই, এইচঅ্যান্ডএম ও নভো নরডিক।
২০১৫ সালের সেরা প্রতিষ্ঠান নির্বাচন করতে গিয়ে পাঁচ লাখেরও বেশি কর্মীর মতামত বিশ্লেষণ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। কসমেটিকস থেকে শুরু করে সফটওয়্যার, কম্পিউটার, রাসায়নিকসহ ৪৭টি দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে বিবেচনায় নিয়েছে গ্রেট প্লেস টু ওয়ার্ক ইনস্টিটিউট।

এই তালিকায় স্থান পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোকে বেশ কিছু শর্ত পূরণ করতে হয়েছে। এর মধ্যে একটি প্রতিষ্ঠানটি পাঁচটি দেশে গ্রেট প্লেস টু ওয়ার্ক লিস্ট অনুযায়ী উত্তীর্ণ হতে হবে, পাঁচ হাজারের বেশি কর্মী থাকতে হবে এবং যে ​দেশের প্রতিষ্ঠান সে দেশের নাগরিকের বাইরে অন্যান্য দেশের অন্তত ৪০ শতাংশ কর্মী ও​ই প্রতিষ্ঠানে থাকতে হবে।

নৃপেন পোদ্দারবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
অনেকেরই স্বপ্ন ইস যদি গুগলে কাজ করার সুযোগ পেতাম! আর থাকবেই বা না কেন, কাজের সবচেয়ে ভালো পরিবেশ আর বেতন-ভাতা মিলিয়ে বিশ্বের সেরা কোম্পানি গুগল। কর্মীদের কাজের সেরা পরিবেশ দেওয়ার জন্য এবার নিয়ে শীর্ষ কোম্পানি হিসেবে হ্যাট্টিক করল গুগল। মার্কিন গবেষণা ও পরামর্শক প্রতিষ্ঠান গ্রেট প্লেস টু ওয়ার্ক ইনস্টিটিউটের করা...