বিশেষ প্রতিবেদক ।
মেধায় ও যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে ধাপে ধাপে এগিয়ে যাচ্ছে নারী। কর্মক্ষেত্রে তারা নিজেদের দক্ষতা ও কৃতিত্বের প্রমাণ দিচ্ছে। রাষ্ট্র পরিচালনা থেকে শুরু করে পর্বত আরোহণ, খেলাধুলা সর্বক্ষেত্রে নারী তার দক্ষতা-যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে যখন অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে যাচ্ছে, তখন রাজনৈতিক পেশিশক্তি, সম্পদহীনতা, গৃহস্থালি কাজের বোঝা আর অনৈতিক-সহিংস নির্যাতন নারীর উন্নয়নে বাধা সৃষ্টি করছে। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

নারী নেত্রীরা বলছেন, সারা বছর নারী নির্যাতন, ধর্ষণ ও হত্যার মতো বিষয়গুলো দেখে পরিবারগুলো শঙ্কিত। এসবের ভয়ে অনেক অভিভাবক তার উচ্চশিক্ষিত মেয়েটিকে কর্মক্ষেত্রে দেওয়ার আগেই বিয়ের জন্যে চাপ সৃষ্টি করছে। এসবই সমাজের অস্থিরতার প্রতিফলন। এভাবে নারীর অগ্রযাত্রা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এদিকে পিতৃতান্ত্রিক সমাজ নারীকে উপাজর্নের জন্যে বাইরে যেতে দিলেও তার উপর ঘরের অমূল্যায়িত কাজ চাপিয়ে রাখছে। ফলে নারী তার সাফল্যের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারছে না। আর নারীদের সস্পত্তিতে অধিকার না থাকায় পরিবারে তাদের তুচ্ছ-তাচ্ছিল্যের শিকার হতে হচ্ছে। যার সহিংস রূপ শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন।

এ অবস্থায় আজ ৮ মার্চ বৃহস্পতিবার উদযাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক নারী দিবস-২০১৮। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য— ‘সময় এখন নারীর : উন্নয়নে তাদের বদলে যাচ্ছে গ্রাম-শহরে কর্মজীবন ধারা’। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী পৃথক বাণী দিয়েছেন।

কাজের মূল্যায়ন নেই: বেসরকারি সংস্থা ‘একশন এইড বাংলাদেশ’ এর করা ‘গৃহস্থালি কাজে নারী ও পুরুষের সময়ের ব্যবহার’ বিষয়ক গবেষণায় দেখা গেছে-একজন নারী প্রতিদিন প্রায় ৮ ঘন্টা গৃহস্থালির সেবামূলক কাজে ব্যয় করেন। যেখানে পুরুষের ব্যয় হয় মাত্র দেড় ঘন্টা। যার পারিবারিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক মূল্যায়ন নেই। ফলে নারীরা অর্থনৈতিক ও সামাজিকভাবে পিছিয়ে পড়ছে।

এমন প্রেক্ষাপটে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, নারীর ঘরের কাজের অর্থনৈতিক মূল্যায়ন খুবই দরকার। যার কারণে জিডিপিতে এর অন্তর্ভুক্তিও নেই। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম বলেন, নারীর গৃহস্থালির কাজের মূল্যায়ন করতে পারলে আমাদের জিডিপি দুই সংখ্যার হতে সময় লাগবে না।

অগ্রগতিতে বাধা সহিংসতা: বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের ২০১৭ সালের নারী নির্যাতন সংক্রান্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের ৮২ ভাগ বিবাহিত নারীই নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। আবার গণপরিবহনে যাতায়াতকালে ৯৪ শতাংশ নারী কোনো না কোনো সময় হয়রানির শিকার হচ্ছে। ২০১৭ সালের ‘বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা’র করা এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, ১২ মাসে দেশে মোট ৭৯৫ জন নারী ও শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এদের মধ্যে ৩২০ জন নারী ধর্ষণের শিকার হয়। গণধর্ষণের শিকার হয় ১১৭ জন। ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় ২৮ জনকে।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু বলেন, নারীরা আজ সমাজের সকল ক্ষেত্রে দৃশ্যমান। কিন্তু উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের অংশীদার নারী উন্নয়নের ফলাফলের সমঅংশীদারিত্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, সরকারের সময় উপযোগী ও বলিষ্ঠ পদক্ষেণের কারণে নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ বিশ্বে অনুকরণীয়। এত অর্জনের পরও দেশের নারীরা বিভিন্ন ভাবে নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, নারীর উন্নয়নের মধ্য দিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে আজকের বাংলাদেশ। যে নারী কর্মক্ষেত্রে কাজ করে যাচ্ছে তারা যেন কোনো ভাবেই ঝরে না যায়।

কর্মসূচি:দিবসটি উপলক্ষে সরকারি ও বেসরকারি সংগঠনগুলো নানা কর্মসূচি পালন করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দিবসটির উদ্বোধন ঘোষণা করবেন। ‘সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি’র সমাবেশ, বিকাল ৩টায়, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। গৃহশ্রমিক অধিকার প্রতিষ্ঠা নেটওয়ার্ক সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ ও র্যালির আয়োজন করেছে। একইসময়ে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংযুক্ত মহিলা পরিষদ ‘নারী ও শিশু ধর্ষণ প্রতিরোধ এবং গার্মেন্টসের নারী শ্রমিকদের সবেতনে মাতৃত্বকালীন ছুটি ৬ মাস বাস্তবায়নের দাবিতে’ র্যালি ও মানববন্ধন করবে। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) সকাল ১১টায় র্যালির আয়োজন করেছে।

দিবসটি উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। এরমধ্যে রয়েছে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা সভা, সামাজিক প্রতিরোধ কমিটির সঙ্গে যৌথ র্যালি এবং ক্রিকেট ম্যাচ। আজ সকাল ১০টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত মিরপুর সিটি ক্লাব গ্রাউন্ডে নারী-পুরুষ সমপ্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। ‘কনসার্ট ফর উইমেন’ এর আয়োজন করা হয়েছে ধানমন্ডির সুলতানা কামাল মহিলা ক্রীড়া কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে। পুলিশ উইমেন নেটওয়ার্ক পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স থেকে সকাল নয়টায় র্যালি বের করবে। এছাড়া কমিউনিটি ক্যান্সার সেন্টার লালমাটিয়ার ব্লক বি, ৭/৯ ঠিকানায় দিনব্যাপী নারীদের ফ্রি ব্রেস্ট ক্যান্সার স্ক্রিনিং প্রোগ্রামের আয়োজন করেছে।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/03/76.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/03/76-300x300.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনজাতীয়
বিশেষ প্রতিবেদক । মেধায় ও যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে ধাপে ধাপে এগিয়ে যাচ্ছে নারী। কর্মক্ষেত্রে তারা নিজেদের দক্ষতা ও কৃতিত্বের প্রমাণ দিচ্ছে। রাষ্ট্র পরিচালনা থেকে শুরু করে পর্বত আরোহণ, খেলাধুলা সর্বক্ষেত্রে নারী তার দক্ষতা-যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে যখন অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে যাচ্ছে, তখন রাজনৈতিক পেশিশক্তি, সম্পদহীনতা, গৃহস্থালি কাজের বোঝা...