আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।
অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত একজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ওই শিক্ষকের চাকরি চলে যায়। সমপ্রতি এ ঘটনা প্রকাশিত হওয়ায় বাংলাদেশি কমিউনিটিতে তোলপাড় শুরু হয়।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
নিউ ক্যাসেল ইউনিভার্সিটি অস্ট্রেলিয়ায় এ ঘটনা ঘটে। ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ড. মিল্টন হাসনাত পিএইচডি করতে আসা বাংলাদেশি একজন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে প্রতারণা করে বিভিন্ন সময়ে অর্থ আদায় করেন। এভাবে নানা অজুহাতে টাকা দাবি করলে ওই শিক্ষার্থীর সন্দেহ হয়। পরে শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীন তদন্তে অভিযোগটি প্রমানিত হয় । বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ওই শিক্ষককে অভিযুক্ত করলে তিনি চাকরি ছাড়তে বাধ্য হন এবং প্রতারণামূলক আদায়কৃত অর্থ শিক্ষার্থীকে ফেরত দেন।

উল্লেখ্য, ওই শিক্ষক দেশের একটি বৃহৎ রাজনৈতিক দলের অস্ট্রেলিয়া শাখার একটি অংশের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছেন।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2019/02/64.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2019/02/64-300x300.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনআন্তর্জাতিক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক । অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত একজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ওই শিক্ষকের চাকরি চলে যায়। সমপ্রতি এ ঘটনা প্রকাশিত হওয়ায় বাংলাদেশি কমিউনিটিতে তোলপাড় শুরু হয়। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। নিউ ক্যাসেল ইউনিভার্সিটি অস্ট্রেলিয়ায় এ ঘটনা ঘটে। ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ড. মিল্টন...