bdp-cow_107549

আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর দেশব্যাপী উদযাপিত হবে ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ। এই ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠতে শুরু করেছে বিভিন্ন পশুর হাট। তবে এরই মধ্যে জমে উঠেছে অনলাইনে কোরবানির হাট। গত দুই বছর ধরে এ ট্রেডিশন বেশি পরিলক্ষিত হচ্ছে। ফলে মর্ত্যলোকের মতো ভাচর্্যুয়াল দুনিয়ায়ও জমে উঠেছে পশুর হাট। যারা সরাসরি হাটে গিয়ে পশু কিনবেন তারাও একনজর চোখ বুলিয়ে নিচ্ছেন এসব অনলাইন হাটে। এখান থেকে তারা আগাম ধারণা নেওয়ার চেষ্টা করছেন- কী দর চলছে বাজারে। আর এ বিষয়টিকে মাথায় রেখে অনলাইন হাট কোম্পানিগুলোও নিজেদের প্রতিনিধি পাঠিয়ে হাটের খবর ও পশুর মূল্য আপডেট রাখছেন। শুধু অনলাইনে বুকিং দিয়েই হোম ডেলিভারির মাধ্যমে পশু পাওয়া যাবে এসব হাট থেকে।

বরাবরের মতো বিক্রয়ডটকম (িি.িনরশৎড়ু.পড়স) গ্রাহকদের জন্য কোরবানির পশুর প্রি-অর্ডার এবং ডেলিভারির অফার দিচ্ছে। অফারের আওতায় আগ্রহীরা অনলাইন মার্কেট প্লেসে বাছাই করা শত শত পশুর বিজ্ঞাপন থেকে গরু অথবা খাসির অর্ডার করতে পারবেন। সেইসঙ্গে ঢাকার গরুর হাট জমে ওঠার আগেই সরাসরি বাসায় ডেলিভারি পাওয়া যাচ্ছে। বিক্রয়ডটকম কর্তৃপক্ষ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, ক্রেতাদের সুবিধার জন্য পশুর বয়স, দাঁতের সংখ্যা, ওজন, চামড়ার রং, জাত, জন্মস্থান ও প্রাপ্তিস্থানও পোস্টে দেওয়া থাকছে। ক্রেতারা চাইলে স্বচক্ষে পশু দেখতে যেতে পারছেন, আবার ছবি দেখে ক্রয় করতে চাইলে বিক্রেতা সেই পশু পেঁৗছেও দিচ্ছেন ক্রেতার ঘরে।

এদিকে বেঙ্গল লাইভস্টকারের অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার মাসুমুল হক বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, বেঙ্গল মিট এবার একটু ভিন্ন মাত্রা এনেছে কোরবানিতে। গ্রাহকরা চাইলেই বেঙ্গল মিট থেকে তাদের কোরবানির পশু বাছাই ও নির্বাচন করে কোরবানি দিতে পারবেন। পুরো প্রক্রিয়াটি ইসলামী শরিয়াহ আইন অনুসারে সম্পন্ন হবে। গ্রাহকরা যাতে ঝামেলামুক্ত ঈদ উদযাপন করতে পারেন- সেজন্য বেঙ্গল মিট তাদের পক্ষ থেকে কোরবানির পশু জবাই ও প্রক্রিয়াজাত করার সব দায়িত্ব পালন করবে। ঈদের জামাতের পরপরই পশু কোরবানি দেওয়া হবে এবং ঈদের তৃতীয় দিন গ্রাহকদের কাছে পেঁৗছে দেওয়া হবে। গ্রাহকরা চাইলে নিজেরাও কোরবানির পশু সরবরাহ করতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে ভারতীয় গরু সরবরাহ করা যাবে না এবং পশু বাছাইয়ের ক্ষেত্রে গবাদিপশুর স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিধিমালা মেনে কোরবানির জন্য পশু সরবরাহ করতে হবে।

কোরবানির পশুর হাট চলছে আমারদেশ ই-শপ ডটকম (ধসধৎফবংযবংযড়ঢ়.পড়স)-এও। এই ভাচর্্যুয়াল হাটে দেখা গেছে রংপুর, গাইবান্ধা, রাজশাহী ও বরিশাল অঞ্চলের তিন শতাধিক দেশি প্রজাতির গরু-ছাগল রয়েছে। এসব পশুর ছবির ক্লোজ ভিউ ছাড়াও ওজন এবং বর্ণ উল্লেখ করা হয়েছে। অন্যদিকে এখানেইডটকমে (িি.িবশযধহবর.পড়স) ভিজিট করে দেখা যায়, বিভিন্ন রকম কোরবানির পশুর বিজ্ঞাপন স্থান পেয়েছে সেখানে। প্রতিদিনই বাড়ছে বিজ্ঞাপনের পরিমাণ। নিত্যনতুন গরুর ছবি আপলোড হচ্ছে এ সাইটটিতে। ক্রেতারা সহজেই জেনে নিতে পারছেন দরদাম এবং অন্যান্য দরকারি তথ্য। বাছাই করতে পারছেন তাদের পছন্দমতো পশু। বিক্রেতারা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানিয়েছেন, এখানেইডটকমে সহজেই কোরবানির পশুর বিজ্ঞাপন দিতে পারছেন। অনেক বিক্রেতা দরদাম আর ছবির সঙ্গে পশুর ওজনও দিয়ে দিচ্ছেন। এতেকরে তুলনা করতে পারছেন হাটের গরুর সঙ্গে।

নগরবোদ্ধারাও বলছেন, সর্বক্ষেত্রে যে ডিজিটালের ছোঁয়া লেগেছে তা এসব অনলাইন হাট থেকেই প্রতীয়মান হয়। অনলাইন হাট কিছুটা হলেও মাঠের হাটের ঝক্কি-ঝামেলা কমিয়েছে। কমিয়েছে কিছু ক্রেতা-বিক্রেতার সরাসরি চাপও।

সুরুজ বাঙালীঅন্যান্য
আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর দেশব্যাপী উদযাপিত হবে ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ। এই ঈদকে সামনে রেখে জমে উঠতে শুরু করেছে বিভিন্ন পশুর হাট। তবে এরই মধ্যে জমে উঠেছে অনলাইনে কোরবানির হাট। গত দুই বছর ধরে এ ট্রেডিশন বেশি পরিলক্ষিত হচ্ছে। ফলে মর্ত্যলোকের মতো ভাচর্্যুয়াল দুনিয়ায়ও জমে উঠেছে পশুর হাট। যারা...