1441726816
রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষের স্বাস্থ্য সেবার একমাত্র আশ্রয়স্থল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে মেশিনটি নষ্ট হয়ে ১০ বছর ধরে অচল পড়ে আছে।

জানা গেছে, মাত্র কমপ্লেক্সটির কর্তৃপক্ষের কর্তব্য অবহেলায় এলাকার সাধারণ মানুষ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

সরেজমিনে জানা গেছে, প্রায় ৪৪ লাখ টাকা মূল্যের ৩০০ এমএম এক্স-রে মেশিনটিতে শুধু ফ্লিম ও কিছু উপকরণ না সংস্থাপনের কারণে দীর্ঘ প্রায় ১০ বছর ধরে এটি অচল রয়েছে। অথচ এর জন্যে দায়িত্বে নিয়োজিত একজন অপারেটর আছে।

উল্লেখ্য, এক্স-রে মেশিনটি ১৯৯৯ সালের ২৩ জুন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হস্তান্তর করা হয়। মেশিনটি ২০০০ সালে ২১ অগাস্টে চালু করা হয়।

হাসন রাজাশেষের পাতা
রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের প্রায় সাড়ে তিন লাখ মানুষের স্বাস্থ্য সেবার একমাত্র আশ্রয়স্থল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে মেশিনটি নষ্ট হয়ে ১০ বছর ধরে অচল পড়ে আছে। জানা গেছে, মাত্র কমপ্লেক্সটির কর্তৃপক্ষের কর্তব্য অবহেলায় এলাকার সাধারণ মানুষ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সরেজমিনে জানা গেছে, প্রায় ৪৪ লাখ...